শনিবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২০

বেরোবি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মনগড়া মন্তব্য

নবপ্রজন্ম শিক্ষক পরিষদ-এর প্রতিবাদ

পাঠক প্রিয়

আজ চট্টগ্রামের মুখোমুখি খুলনা

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে আজ শনিবার দিনের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হবে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম ও জেমকন খুলনা। টুর্নামেন্টের প্রথম দুই...

ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

সমন্বিত সাত ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার পদের (২০১৮ সালভিত্তিক) নিয়োগ পরীক্ষার স্থগিত করা হয়েছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ব্যাংকার্স সিলেকশন কমিটি (বিএসসি)...

পরমানু বিজ্ঞানীকে হত্যার প্রতিশোধ নেবার অঙ্গীকার ইরানের

ইরান দেশটির সবচেয়ে সিনিয়র পরমাণু বিজ্ঞানী মোহসেন ফখরিযাদেকে হত্যার প্রতিশোধ নেওয়ার অঙ্গীকারের ঘোষণা দিয়েছে। ফখরিযাদে, শুক্রবার তেহরানের কাছে দামাভান্দ কাউন্টির...

‘হোলসিম ওয়াটার প্রটেক্ট’ – লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ এর নতুন সিমেন্ট ব্র্যান্ড

বাংলাদেশে ‘হোলসিম ওয়াটার প্রটেক্ট্#৩৯; নামে পানি প্রতিরোধী বিশেষায়িত সিমেন্ট বাজারে এনেছে দেশের নেতৃ¯’ানীয় সিমেন্ট উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ লিমিটেড।...

বিনা মূল্যে করোনার পরীক্ষা শনিবার শুরু

আগামী শনিবার দেশে করোনার অ্যান্টিজেন পরীক্ষা শুরু হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। তিনি আজ...

পুলিশ যখন বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় (বেরোবি) প্রশাসনের সহায়তায় একটি জালিয়াত চক্রকে আটক করে, তখন অধিকার সুরক্ষার নাম করে একজন শিক্ষক প্রশাসনকে প্রশ্নবিদ্ধ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মনগড়া, ভ্রান্ত এবং নানান নেতিবাচক মন্তব্য প্রচার করায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মনগড়া এসব মন্তব্য করার প্রতিবাদ জানিয়েছে বেরোবি নবপ্রজন্ম শিক্ষক পরিষদ।

নবপ্রজন্ম শিক্ষক পরিষদ এক বিবৃতিতে জানায়, বেগম রোকেয়াবিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর আইন, ২০০৯ এর ৪নং ধারার (ড) নং উপধারার মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় এর শিক্ষকদের নৈতিক শৃঙ্খলা তত্ত্বাবধান করা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের দায়িত্ব এবং ঐ আইনের ৫৪নং ধারা দ্বারা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন প্রশাসনিক ক্ষমতা প্রয়োগ করতে পারবে। সেক্ষেত্রে কোন শিক্ষকের নিয়মিত ভুল তথ্য অপপ্রচারের নিরীখে প্রশাসন কেন কারণ দর্শানোর জন্য নোটিশ জারি করবেনা সেটাই নবপ্রজন্ম শিক্ষক পরিষদ জানার আগ্রহ প্রকাশ করছে।

উল্লেখ্য, অধিকার সুরক্ষা পরিষদ নামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে অভিযুক্ত   শিক্ষকের দর্শানো নোটিশকে বেআইনি হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়েছে।

নবপ্রজন্ম শিক্ষক পরিষদ জানায়, বিজ্ঞপ্তিটিতে কিছু আপত্তিকর শব্দ উপস্থাপন করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয় “উপাচার্য অনুপস্থিত থেকে  একটি অন্যায় করেছে, তার হাজিরা খাতা বানিয়ে অনুপস্থিতির হিসাব করা হচ্ছিলো, করোনাকালের মত বৈশ্বিকমহামারীতেও তিনি ক্যাম্পাসে অনুপস্থিত, কিন্তু তিনি অনুপস্থিত থেকেও অন্যায় করা বন্ধ করেননি”। এহেন ন্যাক্কারজনক শব্দের মাধ্যমে মাননীয় উপাচার্য  প্রফেসর ডক্টর মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও স্যারের প্রতি চরমভাবে মানহানিকর বক্তব্য উপস্থাপন করা হয়েছে। একজন শিক্ষকের সু-নির্দিষ্ট দায়িত্ব ও কর্তব্য রয়েছে, কিন্তু সেসব কিছু বাদ দিয়ে হাজিরা খাতা বানানোর দায়িত্ব তাদেরকে প্রদান করেছেন? বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর আইন, ২০০৯  আইনের ধারা-১১(১) ও ১১(২) এ উল্লেখিত আছে যে “ভাইস-চ্যান্সেলর বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বক্ষণিক প্রধান একাডেমিক ও প্রশাসনিক নির্বাহী কর্মকর্তা। ভাইস চ্যান্সেলর তাঁর দায়িত্ব পালনে চ্যান্সেলর এর নিকট দায়ী থাকিবেন”। ফলে এই আইনে ভাইস-চ্যান্সেলর এর আবাসিক দায়িত্বের কথা কোথাও বলা হয়নি। কোভিড-১৯ মহামারী ও আপদকালীনসময়ে বেগম রোকেয়াবিশ্ববিদ্যালয়, রংপুর -এর সম্মানীত রেজিস্ট্রার বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নির্দেশনা অনুযায়ী সার্বক্ষনিক দায়িত্ব পালন করে চলেছেন। বিশ্ববিদ্যালয় ও রেজিস্ট্রার পরিচালিত কার্যক্রমকে বিতর্কিত করার জন্য অধিকার সুরক্ষা পরিষদ অবস্থান নিয়েছে। এর প্রেক্ষিতে নব প্রজন্ম শিক্ষক পরিষদ অধিকার সুরক্ষা পরিষদের এ হীন মানসিকতার কঠোর নিন্দা জানাচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের দৃষ্টিতে অসদাচরণের দায়ে অভিযুক্ত শিক্ষক যাকেঅ ধিকার সুরক্ষাপ রিষদ এক বিবৃতিতে সংগঠনটির একজন সক্রিয় কর্মী ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে দাবী করছে। কিন্তু তার নেতিবাচক আচরণ মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে প্রকাশ করেনা। অধিকার সুরক্ষা পরিষদের আরেকজন অন্যতম সক্রিয় সদস্য দূর্নীতির দায়ে জেলখাটা ২য় উপাচার্যের ঘনিষ্ট আত্মীয় এবং তার সকল দুষ্কৃতির দোসর হিসেবে সক্রিয় ছিলেন। তিনিই এখন রূপ বদলিয়ে অধিকার সংরক্ষণের কথা বলছেন যা গ্রহণযোগ্য নয়। অধিকার সংরক্ষণের নামে বরং তারা উল্টোটাই করছেন। তিনি নিজস্ব ব্যাবসায়িক স্বার্থে দীর্ঘদিন ক্যাফেটেরিয়া বন্ধ রেখেছিলেন। জানা যায়, তার ক্যাটারিং ব্যাবসা রয়েছে। ছাত্র-ছাত্রীদের, শিক্ষক, কর্মকর্তাএবংকর্মচারীদের বৃহত্তর কল্যাণেও তিনি ক্যাফেটেরিয়া চালু করেননি। যখন নানা রকম বাঁধা পেরিয়ে ক্যাফেটেরিয়া চালু করা হয় তখন তিনি তার পদ থেকে অব্যাহতি নেন। এর অর্থ দাড়ায় তিনি শুধুতা র ব্যক্তিগত স্বার্থের ব্যাপারেই সচেতন। এছাড়া তিনি ২য় উপাচার্যের সহযোগিতায় বিশ্ববিদ্যালয়ে তার কতজন আত্মীয়কে চাকুরী দিয়েছেন নবপ্রজন্ম শিক্ষক পরিষদ সে বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তালিকা জানতে চায়। সংগঠনটির অন্য একজন সদস্য তার নিয়োগের শর্ত ভঙ্গ করে কম্পিউটার সায়েন্স ডিপার্টমেন্টে রয়েছেন। ১০ম সিন্ডিকেটের নিয়োগের শর্ত মোতাবেক অনতিবিলম্বে তাকে কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগ থেকে ফিজিক্স বিভাগে স্থানান্তরিত করা হোক। তিনি প্রক্টর থাকাকালীন সময়ে সহযোগী অধ্যাপক থেকে অধ্যাপক হয়েই প্রশাসনের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন। সংগঠনটিরআরেকজন সদস্য পোস্ট ডক্টরাল গবেষণা করার নমিনেশন এবং ফুলটাইম শিক্ষা ছুটি নিয়েছেন কিন্তু তিনি সেসবের তোয়াক্কা না করেই ক্যাম্পসে আনাগোনা করছেন এবং নানারকম অস্থিতিশীল ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি বিনষ্ট হয় এরকম কার্যে লিপ্ত রয়েছেন। তার ফেলোশিপ ও শিক্ষাছুটি বাতিল করা হোক এবং ইউজিসি কে অনতিবিলম্বে এ বিষয়ে অবহিত করা হোক। তিনি জামাত-শিবিরের রাজনীতি করে কিভাবে আজকের জায়গায় পৌঁছেছেন এ বিষয়ে বিভিন্ন সময়ে পত্রিকায় খবরও প্রকাশিত হয়েছে।  উল্লেখ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে শর্ত থাকে যে প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ের চারটি(এস এসসি, এইচ এস সি, স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর) পরীক্ষায় যেকোন দুইটিতে ১ম শ্রেণি বা বিভাগ আবশ্যক। কিন্তু তিনি এস এস সি ও এইচ এস সি তে ২য় বিভাগ এবং  স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর পরীক্ষায় ২য় শ্রেণিতে উত্তীর্ণ হয়ে কিভাবে একজন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্ত হন, যার আরও সুষ্ঠু তদন্ত প্রয়োজন।

এছাড়াও ক্যাম্পাস সবুজায়নের নামে অর্থ আত্মসাৎএর অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। ব্যক্তিস্বার্থ চরিতার্থ করার উদ্দেশ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি বিনষ্ট করার যে পায়তারা তারা করছে, অনতিবিলম্বে তাদের এইসব কার্যক্রমের বিহিত করার জোর দাবী জানাচ্ছে নব প্রজন্ম শিক্ষক পরিষদ। অধিকার সুরক্ষার কথা তারা বলছে, কিন্তু ছাত্র-ছাত্রীদের অধিকার, শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ নিয়ে তাদের কোনো মাথাব্যথা নেই। তারা অসংখ্য ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যৎ নিয়ে তামাশা করছেন এবং সেশন জট তৈরী করছেন।

নবপ্রজন্ম শিক্ষক পরিষদ এ সকল অবাঞ্ছিত ও অপ্রত্যাশিত কার্যক্রমের প্রতিবাদ জানাচ্ছে। নবপ্রজন্ম শিক্ষক পরিষদ মনে করে, বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম ও শিক্ষার পরিবেশ বিনষ্ট করার জন্য অধিকার সুরক্ষা পরিষদের সাম্প্রতিক বিজ্ঞপ্তির উক্ত উস্কানিমূলক বক্তব্যই যথেষ্ট। বক্তব্যটির মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের প্রতি অধিকার সুরক্ষা পরিষদের আক্রমণাত্মক মনোভাব, ভাষাজ্ঞানের অভাব ও আচরণগত অসংগতি প্রকাশ পায়। এছাড়াও বিজ্ঞপ্তিটিতে বিভিন্ন মনগড়া ও বানোয়াট বক্তব্য উপস্থাপন করা হয়েছে। নবপ্রজন্ম শিক্ষক পরিষদ বিজ্ঞপ্তিটি প্রত্যাহারের জোর দাবি জানাচ্ছে।

সর্বশেষ সংবাদ

প্রিমেনস্ট্রুয়াল সিনড্রোম প্রশমনে উদ্ভাবনী সমাধান দেশের পুষ্টি বিজ্ঞানীদের এক যুগান্তকারী উদ্ভাবন

শীর্ষক গবেষণা প্রতিবেদনের ফল উন্মোচন করা হয় মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে। নারীদের মাসিকের ব্যথা...

বিনা মূল্যে করোনার পরীক্ষা শনিবার শুরু

আগামী শনিবার দেশে করোনার অ্যান্টিজেন পরীক্ষা শুরু হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। তিনি আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে প্রথম আলোকে বলেন,...

ইসলামী ব্যাংকের ‘সেলফিন’ অ্যাপের উদ্বোধন

ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড-এর ডিজিটাল প্লাটফর্ম ‘সেলফিন’ অ্যাপ ৩০ নভেম্বর ২০২০, সোমবার ইসলামী ব্যাংক টাওয়ারে উদ্বোধন করা হয়েছে। ব্যাংকের চেয়ারম্যান প্রফেসর মোঃ নাজমুল হাসান,...

সাংবাদিক পরিবার বহুমুখী সমবায় সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভা ও নির্বাচন’ ২০২০-২০২৩ অনুষ্ঠিত হয়

ঢাকা সাংবাদিক পরিবার বহুমুখী সমবায় সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভা ও নির্বাচন’ ২০২০-২০২৩ অনুষ্ঠিত হয়। গত শনিবার (২৮ নভেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাব অডিটোরিয়ামে উৎসবমুখর পরিবেশে স্বা¯’্যবিধি মেনে...

‘হোলসিম ওয়াটার প্রটেক্ট’ – লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ এর নতুন সিমেন্ট ব্র্যান্ড

বাংলাদেশে ‘হোলসিম ওয়াটার প্রটেক্ট্#৩৯; নামে পানি প্রতিরোধী বিশেষায়িত সিমেন্ট বাজারে এনেছে দেশের নেতৃ¯’ানীয় সিমেন্ট উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ লিমিটেড। গতকাল রোবাবার (২৯ নভেম্বর ২০২০)...

জনপ্রিয় সংবাদ

সিভি এবং চাকুরী আবেদনের কিছু প্রয়োজনীয় টিপস

মানবসম্পদ বিভাগে কাজ করার বদৌলতে প্রতিনিয়ত নিত্য নতুন অভিজ্ঞতার সম্মুখে পরতে হয়। যার অধিকাংশই আসে সিভিকে কেন্দ্র করে। আমি সিরিজ আকারে সিভি এবং ক্যারিয়ার...

২৩ কোটি বছরের পুরনো হিরকখণ্ড উদ্ধার!

দেখতে কি সুন্দর হিরকখণ্ডটি । শুক্রবার রাশিয়ার অ্যানাবার নদীর ধারে আলরোসার এবেলিয়াখ খনি থেকে উদ্ধার হয় এই হিরক খণ্ডটি। এখনও স্থির হয়নি হিরকখণ্ডটি পালিশ...

মিথ্যা সংবাদের প্রতিবাদ জানিয়েছে তুরাগ থানা ছাত্রলীগ

তুরাগ থানা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক মোঃ আরিফ হাসান জানায়, গত ১১-০৮-২০২০ তারিখে ’আমার প্রাণের বাংলাদেশ’ নামক পত্রিকার অনলাইন সংস্করণে ‘রাজধানীর উত্তরা যুবলীগ নেতা নাজমুল হাসান...

পুতিনের মেয়েকে দেয়া হলো প্রথম করোনা ভ্যাকসিন

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লামিদির পুতিনের মেয়ে ক্যাটরিনাকে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন দেয়া হয়েছে। এর আগে রাশিয়া বিশ্বের প্রথম করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিনের অনুমোদন ঘোষণা দিয়েছিল। ক্যাটরিনা ভালো আছে। খবর বিজনেস...